জার্মানিকে হারিয়ে মেক্সিকোর চমক

খেলা

জার্মানির শিরোপা ধরে রাখার স্বপ্ন বড় ধাক্কা খেয়েছে প্রথম ম্যাচেই। শুরু থেকেই সমানে সমানে খেলা মেক্সিকো চমক দেখিয়ে হারিয়ে দিয়েছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের।

মস্কোয় ‘এফ’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে ইয়ার্ভিং লোসানোর একমাত্র গোলে জার্মানিকে হারিয়েছে মেক্সিকো। ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসরে জার্মানির বিপক্ষে চার ম্যাচে এটাই তাদের প্রথম জয়।

বাছাই পর্বে ১০ ম্যাচের সবকটিতে জেতার পর হঠাৎ করেই যেন ছন্দ হারিয়ে ফেলে জার্মানি। বিশ্বকাপের আগে ছয় প্রীতি ম্যাচে মাত্র একটিতে জিততে পেরেছিল তারা। উন্নতি হয়নি ফর্মের, হার দিয়ে শুরু করেছে বিশ্বকাপ অভিযান।
লুজনিকি স্টেডিয়ামে রোববার প্রথম মিনিট থেকে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে ম্যাচ। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ও ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দল জার্মানি বল দখলে এগিয়ে ছিল অনেক। আক্রমণও বেশি করেছে ইওয়াখিম লুভের শিষ্যরা। তবে রক্ষণে সেঁধিয়ে যায়নি র‌্যাঙ্কিংয়ে ১৫ নম্বরে থাকা মেক্সিকো। পাল্টা আক্রমণে নিয়মিত পরীক্ষা নিয়েছে জার্মানির।

দূর পাল্লার শটগুলো ছিল গোলরক্ষক বরাবর। সেগুলো খুব একটা পরীক্ষা নিতে পারেনি দুই গোলরক্ষক মানুয়েল নয়ার ও গিয়ের্মো ওচোয়ার।

মাঠে উপভোগ্য ফুটবলের পর ৩৫তম মিনিটে প্রতি আক্রমণ থেকে এগিয়ে যায় মেক্সিকো। হাভিয়ের এর্নান্দেজ বাঁদিকে বল বাড়ান লোসানোকে। অনেক দৌড়ে এসে বল রিসিভ করা সময়ই জামার্নির এক খেলোয়াড়কে এড়ান এই ফরোয়ার্ড। আরেকজন ডিফেন্ডার এগিয়ে এসে বাধা দেওয়ার আগেই নিচু গড়ানো শটে খুঁজে নেন জাল।

তিন মিনিট পর গোল পেয়ে যাচ্ছিল জার্মানিও। টনি ক্রুসের ফ্রি-কিকে উঁচুতে ঝাঁপিয়ে বলে গ্লাভস লাগান গোলরক্ষক গিয়ের্মো ওচোয়া। তাতে বল লাগে ক্রসবারে।
প্রতি আক্রমণ থেকে দ্বিতীয়ার্ধের ৬৩তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করার দারুণ সুযোগ এসেছিল মেক্সিকোর সামনে। কিন্তু ডি-বক্সে ফাঁকায় থাকা কার্লোস ভেলাকে ঠিকমতো বল বাড়াতে পারেননি এর্নান্দেজ।

৬৫তম মিনিটে জেরোম বোয়াটেংয়ের ক্রসে জশুয়া কিমিচের বাই সাইকেল কিক ক্রসবার ঘেঁষে বাইরে চলে যায়।

৭৪তম মিনিটে মাঠে নামেন মেক্সিকোর ডিফেন্ডার রাফায়েল মার্কেস। স্বদেশের আন্তোনিও কারবাহাল ও জার্মান কিংবদন্তি লোথার মাথেউসের পর তিনি খেললেন পাঁচটি বিশ্বকাপ আসরে।

শেষের দিকে প্রতি আক্রমণ থেকে দারুণ দুটি সুযোগ আসে মিগেল লাইয়ুনের সামনে। দুইবারই লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নিয়ে সুযোগ নষ্ট করেন সেভিয়ার এই মিডফিল্ডার।

বেশ কয়েকটি সুযোগ হাতছাড়া করা টিমো ভেরনারের জায়গায় ৮৬তম মিনিটে মাঠে নামেন ইউলিয়ান ব্রান্ডট। ৮৮তম মিনিটে তার ক্রস খুব কাছে থেকেও লক্ষ্যে রাখতে পারেননি মারিও গোমেজ। পরের মিনিটে ব্রান্ডটের বুলেট গতির শট পোস্ট ঘেঁষে চলে যায় বাইরে।

যোগ করা সময়ে প্রতিপক্ষর ডি-বক্সে উঠে আসেন জার্মান গোলরক্ষক নয়ার। তবে তার মরিয়া চেষ্টাও কাজে লাগেনি।
জার্মানির হয়ে গোল করতে পারতেন বেশ কয়েকজনই। বাছাই পর্বে ২১ জন ভিন্ন খেলোয়াড় মিলে করেছিলেন ৪৩ গোল। মেক্সিকোর বিপক্ষে ২৫ শট নিয়ে কেউ পাননি জালের দেখা।

তাই থামল বিশ্বকাপে ২০১০ সালের সেমি-ফাইনালে স্পেনের কাছে হারের পর থেকে শুরু হওয়া জার্মানির অজেয় যাত্রা।

গত বছর দুই দলের শেষ দেখাতেও কনফেডারেশন্স কাপের সেমি-ফাইনালে ৪-১ গোলে হেরেছিল মেক্সিকো। এবার নিল তারা মধুর প্রতিশোধ। ১৯৮৫ সালের পর প্রথমবারের মতো হারাল জার্মানিকে।

১৯৮২ আসরের পর প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে হারল চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ১৯৭৮ বিশ্বকাপের পর প্রথমবারের মতো গ্রুপ পর্বের কোনো ম্যাচে গোল করতে ব্যর্থ হল তারা।

আগামী শনিবার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সুইডেনের বিপক্ষে খেলবে জার্মানি। একই দিন দক্ষিণ কোরিয়ার মুখোমুখি হবে মেক্সিকো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *